law

বাংলাদেশ কোড প্রসঙ্গে

 

সকল আইন ব্যবস্থার একটি প্রাথমিক পূর্বধারণা হচ্ছে নাগরিকগণের আইনে অভিগম্যতা সহজসাধ্য থাকা এবং যাতে আইনগুলো সহজলভ্য হয় এমন অবস্থা সৃষ্টি করা। প্রচলিত আইনগুলো সহজলভ্য করার ক্ষেত্র সৃষ্টির মাধ্যমে এ পূর্বধারণা অর্থবহ হয়ে উঠে।

 

প্রণীত যে কোন আইন সাধারণ মানুষকে অবহিত করার প্রথম পদক্ষেপ হচ্ছে বাংলাদেশ গেজেটে উহার প্রকাশনা। এছাড়াও The Bangladesh Laws (Revision and Declaration) Act, 1973 (Act No. VIII of 1973)  এর ধারা ৬ ও ৬এ অনুসারে সরকার কর্তৃক বাংলাদেশের আইনসমূহ কোড আকারে প্রকাশ করার বাধ্যগত নির্দেশনা হচ্ছে- “বাংলাদেশে প্রচলিত সকল আইন, অধ্যাদেশ এবং রাষ্ট্রপতির আদেশ কালানুক্রমিকভাবে বাংলাদেশ কোড শিরোনাম ও আকারে প্রকাশ করিতে হইবে।” এবং ১৯৭৭ সন হতে ১৯৮৮ সনের মধ্যবর্তী সময়ে বাংলাদেশ কোড আকারে ১৮৩৬ সন হতে ১৯৩৮ সনের আইনসমূহ ১১টি ভলিউমে প্রথম প্রকাশিত হয়। বর্তমান পর্যায়ে বাংলাদেশ কোড রেগুলেশন ও পুরোপুরি সংশোধনী আইন ব্যতীত, বাংলাদেশে বিদ্যমান সকল আইন, অধ্যাদেশ এবং রাষ্ট্রপতির আদেশ মোট ৩৮টি ভলিউমে উহার কালানুক্রমিক ও বর্ণানুক্রমিক সূচিপত্রসহ প্রকাশ করা হয়েছে। ইতিপূর্বে ১১ (এগার) টি ভলিউমে প্রকাশিত বাংলাদেশ কোড বর্তমান প্রকাশনায় ভলিউম ১ হতে ৮ এবং আংশিক ভলিউম ৯ এ পুনর্বিন্যস্ত করা হয়েছে এবং ১৯৩৯ সন হতে ২০০৬ সন পর্যন্ত সংকলিত আইনসমূহ একত্রে ভলিউম ৯ হতে ৩৮ এ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

 

১৮৩৬ সনের পরে উত্তরাধিকারসূত্রে অতীতের ধারাবাহিকতায় বিভিন্ন কর্তৃপক্ষ কর্তৃক তৎকালীন সময়ে বলবৎ সংবিধানের আওতায় প্রদত্ত ক্ষমতাবলে প্রণীত আইনসমূহ বর্তমান কোডে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। বাংলা ভাষা প্রচলন আইন, ১৯৮৭ প্রবর্তনের পরে বাংলা ভাষায় প্রণীত সকল আইন ভলিউম ২৭ হতে ভলিউম ৩৮ এ অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

 

ইংরেজিতে প্রণীত আইনসমূহ:- ভলিউম ১ হতে ভলিউম ২৬ (১৮৩৬ সন হতে ১৯৮৬ সন পর্যন্ত)

বাংলায় প্রণীত আইনসমূহ:- ভলিউম ২৭ হতে ভলিউম ৩৮

 

এই ওয়েব সাইটে বাংলাদেশ কোড “Portable Document Format (PDF)” এ উপস্থাপন করা হয়েছে, যেখানে জুন, ২০০৭ এ প্রকাশিত “বাংলাদেশ কোড” অবিকলভাবে ইলেক্ট্রনিক পদ্ধতিতে সংকলন করা আছে।

 

সংশ্লিষ্ট সংযোগ

বাংলাদেশ সরকার এর অফিসিয়াল ওয়েবসাইট

লেজিসলেটিভ ও সংসদ বিষয়ক বিভাগ

সংসদ সচিবালয়

 

 

 

 

 

Copyright © 2010, Legislative and Parliamentary Affairs Division

Ministry of Law, Justice and Parliamentary Affairs